Connect with us

কীভাবে অনলাইনে নিরাপদে কেনাকাটা করবেন?

কী কেন কীভাবে

কীভাবে অনলাইনে নিরাপদে কেনাকাটা করবেন?

১. ওয়েবসাইট এবং বিক্রেতা সম্পর্কে জানুনঃ-

ইন্টারনেটে কেনাকাটা করার জন্য হাজারো ওয়েবসাইট ও ব্যবসায়ী আছে। এদের মধ্যে বেশীরভাগই বিশ্বাসযোগ্য কিন্তু তার মধ্যেও খারাপ ও ধোঁকাবাজি ওয়েবসাইট ও ব্যবসায়ী আছে। এদের চিহৃত করারজন্য একটু গ্যান থাকা প্রয়োজন বা গবেষণা করা দরকার।

 

Template 1599667 640

যদি আপনি এরকম কোন ওয়েবসাইট ব্যবহার করছেন যেটা আগে কোনদিন ব্যবহার করেননি, তাহলে কেনাকাটা করার আগে  ওয়েবসাইটির সম্পর্কে জানুন,অনলাইনে কোন খারাপ প্রতিক্রিয়া আছে কিনা তা দেখে নিন। কোন ওয়েবসাইট এবং বিক্রেতার সম্পর্কে ভাল খারাপ জানার জন্য TrustPilot ওয়েবসাইটে জান। 

২. রিটার্ন এবং জালিয়াতিঃ-

অনলাইনে কেনার আগে আপনার কিছু তথ্যও খুঁজে বের করা উচিত। ডেলিভারি কতক্ষণ সময় নেবে এবং আইটেমটি কোথা থেকে পাঠানো হচ্ছে ? আইটেমটি স্টক থাকলে দেশিও বিক্রেতার কাজ থেকে এক সপ্তাহের মধ্যে পাওয়া উচিত।রিটার্নপলিসি আছেকিনা ? যদি তাদের কাছে এটা নাথাকে তাহলে আপনার সন্দেহ হয়া উচিত।যদি বিক্রেতা কিছু না পাঠায় বা খারাপ জিনিস পাঠায় তাহলে কোন সাহায্য পাবেন কিনা তা জানা উচিৎ।অনলাইনে জাল জিনিসের একটি বড়ো বাজার রয়েছে। কিন্তু এটি ধরা খুব কঠিন। এমনকি জাল জিনিস হাতে এলেও বোঝা যায়না। এরা খুব অফার দিয়ে থাকে। আসল জিনিসটির জন্য কী খরচ হবে তা নিয়ে গবেষণা করলেই বোঝাযায় যে জিনিসটি ঠিক না ভুল।

৩. কোন ওয়েবসাইট সুরক্ষিত আপনি কীভাবে বুঝবেন?Money 256314 640

শুধুমাত্র সুরক্ষিত ওয়েবসাইটেই আপনার কার্ডের তথ্য দিন। আপনি সুরক্ষিত ভাবে কেনাকাটা করছেনকিনা সেটাযান্তে  নিন্মলিখিত বিসয় গুলিতে লক্ষকরুণ। কিন্তু মনেরাখবেন ওয়েবসাইট সুরক্ষিত হতেপারে কিন্তু তারমানে এইনয় যে বিক্রেতা সৎ। 

 

  • প্যাডলক চিহৃ- আমরা জেখানে ওয়েবসাইট এর ঠিকানা লিখি তারপাশে প্যাডলক চিহৃথাকা উচিৎ।

 

  • ওয়েবসাইটের ঠিকানাঃ- ওয়েবসাইটের ঠিকানা https:// দিয়ে শুরু হওয়া উচিৎ।

 

  • সবুজ ঠিকানা বারঃ- নির্দিষ্ট ব্রাউজার এবং ওয়েবসাইটে অ্যাড্রেস বারটি সবুজ হয়ে যাবে।

 

  • বৈধ সার্টিফিকেটঃ-  আপনি যদি প্যাডলক প্রতীক বা ঠিকানা বারের ঠিক বাম দিকে ক্লিক করেন তবে সাইটের সার্টিফিকেট এর তথ্য দেখতে পাবে। আপনার জানা উচিৎ কে ওয়েবসাইটটি  register করেছে। যদি আপনি সার্টিফিকেট সম্পর্কে কোনও সতর্ক বার্তা পান তবে ওয়েবসাইটটি এড়িয়ে চলুন।

 

 

 

 

৪. ওয়েবসাইট ফর্মিং স্ক্যামগুলি কী কীঃ-

আপনার ফর্মিং স্ক্যামগুলি সম্পর্কেও সচেতন হওয়া উচিত, যে ওয়েবসাইটটি আপনি ব্যবহার করছেন প্রতারকরা তা আক্রমণ করতেপারে। আপনার মনেহবে আপনি সঠিক ওয়েবসাইটে আছেন। কিন্তু এটি আপনার তথ্য চুরি করার জন্য ডিজাইন করা একটি জাল ওয়েবসাইট। 

৫. অনলাইন সুরক্ষাঃ-

অনলাইনে নিজেকে নিরাপদ রাখতে আপনি করতে পারেন এমন বেশ কয়েকটি কাজ। আপনার সফ্টওয়্যার এবং অ্যান্টি-ভাইরাস সুরক্ষা আপ-টু-ডেট রয়েছে  কিনা তা নিশ্চিত করুন। আপডেটগুলিতে প্রায়ই এমন পরিবর্তন থাকে যা আপনাকে এবং আপনার ডিভাইস কে স্ক্যামার এবং অনলাইন অপরাধীদের থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করবে। আপনার অনলাইন অ্যাকাউন্টগুলির জন্য সর্বদা শক্তিশালী পাসওয়ার্ড লাগান। নাম্বার,অকক্ষর ও সিম্বল দিয়ে পাসওয়ার্ড বানালে পাসওয়ার্ড শক্তিশালী হয়।

Cyber Security 2296269 640

৬. Wi-Fi সুরক্ষাঃ-

আপনি যে ইন্টারনেট সংযোগটি ব্যবহার করছেন সেটি নিরাপদ কিনা তা নিশ্চিত করুন। অনলাইনে কেনাকাটা, কফি শপ, শপিং সেন্টার এবং অন্যান্য জায়গাগুলিতে পাবলিক ওয়াই-ফাই ব্যবহার করবেন না, ইন্টারনেট ব্যাংকিং বা আপনাকে ব্যক্তিগত তথ্য প্রেরণের জন্য প্রয়োজনীয় অন্যকিছু ব্যবহার করুন।

 

এর কারন পাবলিক Wi-Fi কানেকশ্নগুলি নিরাপদ থাকেনা। যার অর্থ এই নেটওয়ার্কগুলির সাথে সংযুক্ত থাকাকালীন আপনি যে কোনও তথ্য প্রেরণ করেন তা প্রতারকরা অ্যাক্সেস করতে পারে। এমনকি আপনার সাধারণ মোবাইল ডেটা পাবলিক Wi-Fi এর চেয়েও বেশি সুরক্ষিত।

 

৭. অনলাইনে শুরক্ষিত ককেনাকাটা করার উপায়ঃ-Woman 3040029 640

বিল দেওয়ার সময় নিজের সতর্ক থাকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যদি কোনও নকল বিক্রেতার কাছ থেকে কিনেন তবে আপনি কিছুটা অর্থ হারাতে পারেন,তবে যদি আপনার কার্ডের  তথ্য চুরি হয়ে যায় তাহলে আপনি সমস্ত অর্থ হারাতে পারেন। অনেক ব্যাংক ও সোসাইট এ অনলাইন কেনাকাটা করার জন্য ডবল (2FA) নিরাপত্তার ব্যবস্তা করেছে।

 

এর অর্থ হ’ল আপনি যখন কোনও অনলাইনবিল দিবেন, তখন আপনি  বিল দিচ্ছেন তা প্রমাণ করার জন্য আপনাকে বিল দেওয়ার সময় 2FA সুরক্ষা আপনার আকাউন্টে রেজিস্টার করা মবাইল নাম্বারে একটি SMS পাঠীয়ে দেবে, তবে এটি কোনও সুরক্ষা প্রশ্নও হতেপারে, আপনার মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপে লগ ইন বা একটি আঙুলের ছাপ স্ক্যান করতে বোলতে পারে।

পেপাল একটি এমন ই-মানি পরিষেবা  যে আপনাকে বিলদেওয়ার সময় আপনার আসল কার্ডের তথ্য দিতে হবে না।

 

৮. অনলাইনে আপনি কার্ড ব্যবহার করে কীভাবে সুরক্ষিত রয়েছেনঃ

গ্রাহক Credit আইনের ধারা 75 এর অধীনে, ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে প্রদান করা 100 এর বেশি থেকে 30,000 ডলার পর্যন্ত কেনাকাটাগুলিতে যুক্ত সুরক্ষা দেবে। এর অর্থ এই যে কার্ড সরবরাহকারীর ত্রুটিযুক্ত, অসন্তুষ্টিহীন বা অবিকল্পিত আইটেমগুলির জন্য বিক্রেতার সাথে সমান দায়িত্ব রয়েছে।

 

আপনি চার্জব্যাক নামক স্বেচ্ছাসেবক প্রকল্পের অধীনে ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডে 100 ডলার এর মধ্যেও  নিশ্চিত হতে পারেন। কোনও কেনাজিনিস না আসলে বা খারাপ থাকলে এটি আপনাকে আপনার কার্ড প্রদানকারীর কাছ থেকে ফেরতের দাবি জানাতে অনুমতি দেয়।

 

৯. কিছু ভুল হয়ে গেলে কি করবেনঃ-

প্রথম পদক্ষেপটি যদি আপনাকে ভুল বা ত্রুটিযুক্ত আইটেম পাঠান হয় তবে আপনাকে অনলাইন বিক্রয়কারী এবং আপনি যে ওয়েবসাইটটি (ইবে বা অ্যামাজন ) ব্যবহার করেছেন তার সাথে যোগাযোগ করা উচিত।

আপনি যদি কার্ডে অর্থ প্রদান করে থাকেন এবং আপনি খরচ বিক্রেতার প্রতিক্রিয়ায় সন্তুষ্ট না হন বা আপনি কোনও প্রতিক্রিয়া না পেয়ে থাকেন তবে আপনার কার্ড প্রদানকারীর সাথে যোগাযোগ করুন।

 

যদি আপনার মনেহয় যে আপনার কার্ডটি প্রতারণামূলকভাবে ব্যবহার করা হয়েছে তবে আপনি সরাসরি আপনার ব্যাঙ্ককে জানান যাতে তারা কার্ডের ব্যবহার বন্ধ করতে পারে।

যদি আপনাকে  কেউ প্রতারণা মূলক কল করে তাহলে আপনি থানায় ডায়্যরি দিতে পারেন।

Continue Reading
Click to comment

You must be logged in to post a comment Login

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More in কী কেন কীভাবে

Advertisement

বিভাগ সমূহ

টেক-বেঙ্গল পোল

"বাঙালীরা এখনো তথ্য প্রযুক্তি -তে পিছিয়ে" আপনি কি মনে করেন ?

View Results

Loading ... Loading ...

সেরা টেক বাঙালী

To Top